সোমবার, ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

Beta Version

এলো ফাগুন, এলো বসন্ত

POYGAM.COM
ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০১৮
news-image

পয়গাম ডেস্ক: আজ পহেলা ফাল্গুন। বাংলার ঋতুরাজ বসন্ত এসেই গেলো। ঋতুরাজের আগমনে নানা ফুলের, নানা রঙের হবে ছড়াছড়ি। এখন থেকে ফুলে ফুলে মন মাতানো রূপ নিয়ে আবির্ভূত হবে এদেশের প্রকৃতি।

বসন্ত বাতাসে রঙিন ফুলের মেলায়, পাখির কূজনে হৃদয়ে দোদুল দোলা, কী যে আনন্দে ভাসে হিয়া, কী নব উল্লাসে…

দখিনা উদাসী বায়ে আজ দুলবে সবার মনপ্রাণ। বুঝি সকল ভালোবাসাকে সম্মিলিত করে জীবনের জয়গান গেয়ে ওঠার ক্ষণ এখন।

ফাগুন হাওয়ার দোল লেগেছে বাংলার প্রকৃতিতেও। ফুলে ফুলে রঙিন হয়ে উঠছে সবুজ অঙ্গন। মাঘের শেষ দিক থেকেই গাছে গাছে ফুটছে আমের মুকুল। ফুটেছে কৃষ্ণচূড়া, রাধাচূড়া, নাগলিঙ্গম।

নগরে কখনও কখনও শোনা যায় কোকিলের কুহু কুহু সুর। ফুলের মেলায় ঘুরে বেড়ায় আরো কতো পাখি।

রাষ্ট্রভাষা আন্দোলনে শহীদের রক্ত রঞ্জিত এই মাস। এ কারণে বাঙালির কাছে বসন্ত আরও বেশি মহিমান্বিত হয় ওঠে এ সময়। এ উপলক্ষে রাজধানীতে চলছে অমর একুশে বইমেলা।

তরুণ-তরুণী সবার পরিধানে শোভা পাবে হলুদ, কমলাসহ নানা রঙের পোশাক। বসন্ত নিয়ে ইদানিং একটু বেশি মাতামাতি হয়, কারণ এর পরের দিন বিশ্ব ভালোবাসা দিবস।

বাঙালির জীবনে বসন্তের উপস্থিতি অনাদিকাল থেকেই। কবিতা, গান, নৃত্য আর চিত্রকলায় আছে বসন্তের বন্দনা। বাউল কবি থেকে রবীন্দ্রনাথ, আধুনিক কবি সবাই বসন্তের বন্দনা করেছেন। আজ আনুষ্ঠানিকতার মাধ্যমে এই দিনটিকে পালন করবেন ঢাকার মানুষ।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদের বকুলতলা, লক্ষ্মীবাজারের বাহাদুর শাহ পার্ক, ধানমণ্ডি লেকের রবীন্দ্র সরোবরসহ ঢাকার বিভিন্ন স্থানে বসন্ত উৎসবে অংশ নিয়ে থাকেন তরুণ-তরুণী, শিশু-কিশোর ও সর্বস্তরের মানুষ।