রবিবার, ২১ জানুয়ারি ২০১৮

Beta Version

সুস্থ ও দীর্ঘ জীবনের জন্য এক অভ্যাস

POYGAM.COM
ডিসেম্বর ৩১, ২০১৭
news-image

জীবন যেমন ডেস্ক: আমরা কে না চাই, সুস্থ থেকে দীর্ঘ জীবন লাভ করতে? সাম্প্রতিক এক গবেষণায় জানা গেল আয়ু বাড়ানো এবং সুস্থ থাকার একটি মাত্র নিয়ামকের কথা। আর সেটি হলো একটি অভ্যাস যা আমরা একটু সচেতন হলেই রপ্ত করতে পারি।

তিন হাজার প্রাপ্ত বয়স্ক ব্যক্তির ওপর গবেষণা চালানো হয়। অংশগ্রহণকারীদের বয়সসীমা ছিল ৭০-৯০ বছর। গবেষণায় তাদের প্রত্যেকের দৈনন্দিন অভ্যাসের ওপর নজরদারি করা হয়।

এ বিশালসংখ্যক অংশগ্রহণকারীদের তিনটি দলে ভাগ করেন গবেষকদল। প্রথম দলটিতে রাখা হয়— যাদের অভ্যাস রোজ ঘর থেকে বের হওয়া, দ্বিতীয় দলে যারা সপ্তাহে দুই-পাঁচবার বের হন ও সর্বশেষ দলে ছিলেন, যারা প্রতি সপ্তাহে মোটে একবার বের হন বা একেবারেই বের হন না। গবেষণায় দেখা গেছে, যারা প্রতিদিন ঘরের বাইরে যান, তাদের মৃত্যুঝুঁকি তুলনামূলক কম। অন্যদিকে যারা ঘরের বাইরে কম বের হন, তাদের মৃত্যুঝুঁকি সবচেয়ে বেশি।

ইসরাইলের হাদাসসাহ হিব্রু ইউনিভার্সিটি মেডিকেল সেন্টারের মেডিসিনের ডাক্তার ও গবেষণার প্রধান লেখক জেরেমি জ্যাকব উল্লেখ করেন, প্রাসঙ্গিকভাবে ডায়াবেটিস ও হৃদরোগের মতো অসুখগুলোও বিবেচিত হয়েছে এ গবেষণায়। তবে বাইরে বের হওয়ার সঙ্গে কর্মক্ষমতা বা শারীরিক পরিশ্রমের যোগসূত্র স্থাপন করা হচ্ছে না। অর্থাৎ রোজ বাইরে গিয়ে জগিং করলেই যে দীর্ঘায়ু লাভ করা যাবে তা নয়, বরং ঘরের বাইরে গিয়ে যদি খোলা হাওয়ায় চুপচাপ বসেও থাকা যায়, তাহলেও উপকার পাওয়া যাবে।

আগের গবেষণাগুলোয় দেখা গেছে, যারা বেশিরভাগ সময় ঘরের বাইরে কাটান, তাদের স্ট্রেসের মাত্রা কম, মানসিকভাবে তারা ভালো থাকেন ও দীর্ঘায়ু হন। পাশাপাশি বাইরের বিশুদ্ধ বাতাস, প্রকৃতি মন ভালো রাখে, শরীর ফুরফুরে রাখে ও আবেগের ভারসাম্য বজায় রাখায় সহায়তা করে।

তাছাড়া সাম্প্রতিক গবেষণায় উল্লেখ করা হয়েছে, যারা প্রায়ই বাইরে বের হন, তাদের সামাজিক যোগাযোগ ভালো থাকে বলে বিষণ্নতা ও অ্যাংজাইটিতে কম ভোগেন তারা।

অতএব, নিয়মিত ঘরের বাইরে যান, নির্মল বাতাসে একটু হাঁটাচলা করুন। আত্মীয়তা সম্পর্কসহ সামাজিক যোগাযোগ বৃদ্ধি করুন। জীবন ও হায়াত হবে সংহত। আর বাইরে গিয়ে যদি নিয়মিত অন্তত ২০ থেকে ৩০ মিনিট জগিং কিংবা সাঁতার চর্চা করতে পারেন তাহলে তো সুস্বাস্থ্যের জন্য সোনায় সোহাগা।

সূত্র: প্রিভেনশন