সোমবার, ১৮ ডিসেম্বর ২০১৭

Beta Version

হার্ট ফেল্যুরের ঝুঁকি কমায় উদ্ভিজ্জ খাবার

POYGAM.COM
ডিসেম্বর ৩, ২০১৭
news-image

স্বাস্থ্যকথা ডেস্ক: হার্ট ফেল্যুর বা হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে আকস্মিক মৃত্যুর ঘটনা আমাদের চারপাশে অহরহই ঘটছে। দুর্বল হৃদযন্ত্র যখন আর আমাদের শরীরে প্রয়োজনীয় রক্তের স্বাভাবিক সরবরাহ দিতে পারে না, তখনই তাকে হার্ট ফেল্যুর বলে অভিহিত করা হয়।

অতিরিক্ত চর্বি ও শর্করাযুক্ত খাদ্যগ্রহণ, ধূমপান ও অস্বাস্থ্যকর জীবনযাপনই বিশ্বব্যাপী প্রাণঘাতী এ হৃদরোগের প্রকোপ বৃদ্ধির কারণ। এ থেকে মুক্তির বড় একটি উপায় হতে পারে খাদ্যাভ্যাস ও জীবনাচরণে পরিবর্তন সাধন।

সাম্প্রতিক এক গবেষণায় দেখা গেছে, নিয়মিত উদ্ভিজ্জ খাদ্য (ফলমূল ও শাকসবজি) গ্রহণে হার্ট ফেল্যুরের ঝুঁকি কমে ৪২ শতাংশ। খবর ইনডিপেনডেন্ট।

পাঁচ ধরনের খাদ্যাভ্যাস ও এর প্রভাব নিয়ে গবেষণার ভিত্তিতে এ সিদ্ধান্তে পৌঁছেছেন গবেষকরা। তাদের পর্যবেক্ষণে উঠে আসে, যারা নিয়মিত প্রচুর শাকসবজি ও ফলমূল খেয়ে থাকেন, নিরামিষ বিমুখ ব্যক্তিদের তুলনায় তাদের হার্ট ফেল্যুরের ঝুঁকি ৪২ শতাংশ কম।

প্রায় চার বছর ধরে ১৫,৫৬৯ জন ব্যক্তির খাদ্যাভ্যাস ও তাদের স্বাস্থ্যের তথ্যের ভিত্তিতে এ গবেষণা চালান যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কভিত্তিক আইকান স্কুল অব মেডিসিনের বিজ্ঞানীরা। পর্যবেক্ষণাধীন ব্যক্তিদের খাদ্যাভ্যাসকে পাঁচ ভাগে ভাগ করা হয়। গবেষণায় দেখা যায়, যারা নিয়মিত উদ্ভিজ্জ খাদ্য তথা শাকসবজি ও ফলমূলজাতীয় খাবার বেশি খাচ্ছেন, তাদের মধ্যে হার্ট ফেইলিয়রের আশঙ্কা ও সংশ্লিষ্ট প্রভাবকের (রিস্ক ফ্যাক্টর) উপস্থিতি অন্যদের তুলনায় অনেকখানি কম।

বিশ্বব্যাপী হৃদরোগের প্রাদুর্ভাব এতটাই বেড়েছে, এর ফলস্বরূপ অকালমৃত্যু ঠেকাতে নানা গবেষণা, পরীক্ষণ ও পর্যবেক্ষণে মেতে উঠেছেন গবেষকরা। আশার বাণীও শোনা যাচ্ছে অনেক। সমসাময়িক আরেক গবেষণায় দেখা গেছে, সপ্তাহে কফিপানের পরিমাণ প্রতি এক কাপ বাড়ানোর সঙ্গে হার্ট ফেল্যুর ও স্ট্রোকের ঝুঁকি কমে যথাক্রমে ৭ ও ৮ শতাংশ।

সম্প্রতি ক্যালিফোর্নিয়ার আনাহাইমে অনুষ্ঠিত আমেরিকান হার্ট অ্যাসোসিয়েশনের সায়েন্টিফিক সেশনের বৈঠকে উল্লিখিত গবেষণা দুটির ফলাফল প্রথমবারের মতো উপস্থাপন করা হয়।